1. motiarbtv@gmail.com : admin :
  2. superadmin@dainikmirpur.com : admin-1 :

আব্বু আম্মু ক্ষমা করে দিও, আজ বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল…

দৈনিক আলো রিপোর্ট:
  • প্রকাশ : শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৭৮৪ বার পড়া হয়েছে

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুকে শহর, ঘর, পরিবারের কাছে ক্ষমা চেয়ে স্ট্যাটাস দিয়ে শিব্বির আহমেদ নামে এক শিক্ষার্থী নিখোঁজ হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে।

শিব্বির ময়মনসিংহ আনন্দ মোহন কলেজের ইংরেজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নে বানিয়াবাড়ী এলাকার আব্দুল্লাহ আল-ফারুকের ছেলে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, শিব্বির ময়মনসিংহ শহরের মীরবাড়ী কলেজ রোড এলাকায় একটি মেসে থাকতেন। শুক্রবার ময়মনসিংহ থেকে জামালপুরের মেলান্দহে নিজ বাড়িতে ফেরার কথা ছিল।

ওই দিন সকালে শিব্বির ফোন করে বাড়িতে আসার কথা জানায়। তবে এর আগে, সেদিন ভোরেই তিনি ফেইসবুকে দু’টি রহস্যময় স্ট্যাটাস দেন। একটিতে তিনি লেখেন- “ভালো থাকবে জায়গা, সুখে থাকবে শহর”। অপর স্ট্যাটাসে লেখেন- “ঘর, পরিবার, জায়গা ক্ষমা করে দিও”।

সূত্র আরও জানায়, এর পরে সকাল ৭ দিকে পরিবারকে আবার ফোন করে শিব্বির জানান, ময়মনসিংহ থেকে তিনি ট্রেনে বাড়ি আসছেন। এই ফোন কল দেওয়ার কিছু আগে শিব্বির তার ফেইসবুকে সর্বশেষ স্ট্যাটাসটি পোস্ট করেন। সেখানে তিনি লেখেন- “আব্বু আম্মু ক্ষমা করে দিও আজ বাড়ি যাওয়ার কথা ছিল, আপু মুশাব্বিরের প্রতি খেয়াল রাইখ।”

এ স্ট্যাটাস দেখে পরিবারের লোকজন শিব্বিরকে কল করলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে তার পরিবার শিব্বিরের মেস ও বিভিন্ন জায়গায় সন্ধান করলেও তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

নিখোঁজ শিক্ষার্থীর খালাতো ভাই মুত্তাছিম বিল্লাহ বলেন, আমাদের ধারণা শিব্বির মেস থেকে বৃহস্পতিবার রাতেই বের হয়েছে। শুক্রবার সকালে তার ফেইসবুকে কয়েকটি স্ট্যাটাস দেন, তারপর থেকে আমরা খোঁজখবর নেওয়া শুরু করি। সর্বশেষ ফোনে জানানো হয়ে বাড়িতে আসতেছেন। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও আমরা তাকে কোথাও খুঁজে পাইনি। সে আত্মহত্যা করার মতো ছেলে না। হঠাৎ এ ধরনের স্ট্যাটাস দিয়ে কি জন্য নিখোঁজ হলো আমরা বুঝতে পারছি না।

শিব্বির আহমেদ বাবা আব্দুল্লাহ আল ফারুক বলেন, “আমার ছেলে খুব সহজ সরল, সে কখনোই আত্মহত্যা করতে পারে না। তার টাকা-পয়সারও কোনো সমস্যা ছিল না। হঠাৎ কী জন্য ফেইসবুকে এ ধরনের পোস্ট দিয়ে নিখোঁজ হলো কিছুই বুঝতে পারছি না।”

তিনি জানান, এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে কোতোয়ালি থানায় জিড়ি করছি। এখনো কোন খোঁজ পাইনি।

Print Friendly, PDF & Email
আরো পড়ুন
© All rights reserved © dainikmirpur.com

Customized By Design Host BD